অ্যানকোল ওয়াটুসি 

এদের ইংরেজি নাম Ankole-Watusi এবং বৈজ্ঞানিক নাম Bos taurus এমন নাম শুনে মনে হতে পারে চায়নিজ কোন প্রাণীর কথা বলা হচ্ছে নিশ্চয়। আসলে এরা চায়নিজ কোন প্রাণী নয়, এরা আফ্রিকা মহাদেশের এক প্রকারের বৃহৎ শিংওয়ালা প্রাণী।

মূলত অ্যানকোল ওয়াটুসি আফ্রিকান গরুর একটি বংশধর। এরা অত্যান্ত লম্বা শিং এর অধিকারী হয়ে থাকে। গরু সেতো গরুই বা গরুর শিং সেতো গরুর শিংই এটা আবার দেখার কি হলো এমন মনে হতেই পারেই।

কিন্তু অ্যানকোল ওয়াটুসি নামের এই গরুদের শিং যেনতেন শিং নয়। এদের দুইটি শিং প্রায় ১২ ফুট পর্যন্ত লম্বা হতে পারে। শুধু তাই নয়, একেকটি শিং এর ওজন হতে পারে প্রায় ৬০ কেজি পর্যন্ত। আফ্রিকার এই অ্যানকোল ওয়াটুসি নামক গরুর বংশধরদের বিশ্বব্যাপী প্রচুর চাহিদা রয়েছে। তবে সেই চাহিদা এদের মাংসের জন্য নয়।

সেটা এদের বৃহৎ এই সুন্দর শিং-এর জন্য। একটি প্রাপ্ত বয়স্ক অ্যানকোল ওয়াটুসি গরুর আন্তর্জাতিক বাজার মূল্য প্রায় ৫ হাজার ডলার।

আফ্রিকার গরুর খামারিরা এদেরকে পালন করে থাকে এই শিং-এর জন্য। তবে এদের থেকে সাধারণ গরুর মতই মাংস এবং দুধ পাওয়া যায়। বিশাল বড় শিং দেখে অনেকেই ভাবতে পারেন এরা আসলে খুব হিংস্র বা ভয়ানক হতে পারে।

আসলে তা নয়, অ্যানকোল ওয়াটুসি নামের এই গরুরা একটা দীর্ঘসময় ধরে মানুষের আশেপাশেই রয়েছে তাই তাদের মধ্যে কখনই বন্য আচরণ পরিলক্ষিত হয় না। এরা মানুষের সাথে খুবই বন্ধুত্বপূর্ণ আচরন করে থাকে।

লিখেছেনঃ লোটাস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *