স্পিটিং কোবরা

Naja গোত্রীয় কিছু গোখরা সাপ আছে যারা কামড়ের থেকে বিষ ছুড়ে মারাকেই বেশি পছন্দ করে এদেরকে স্পিটিং কোবরা বলা হয়। এই কোবরাদের প্রধানত মধ্য এশিয়া এবং আফ্রিকাতে দেখতে পাওয়া যায়।

কম করে হলেও বিশ ধরণের এই সাপের প্রজাতি রয়েছে। বিষ দাতের গঠনের কারণেই মূলত এরা অন্য কোবরা সাপ থেকে আলাদা। তাদের বিষ দাতের গঠনই মূলত তাদেরকে বিষ নিক্ষেপ করার সক্ষমতা দান করে।

সায়েন্টিস্টরা এদের বিষ নিক্ষেপের উপর আলোকপাত করে এ সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে যে এ সাপের মূল টার্গেট থাকে তার শত্রুর চোখ। চোখকে অন্ধ করে দেওয়াই মূলত এদের বিষ নিক্ষেপের মূল উদ্দেশ্য থাকে।

এজন্য এদের সামনে যেতে হলে অবশ্যই গগল বা চশমা ব্যবহার করতে হবে। এই বিষ চোখ অন্ধ করে দেওয়ার জন্য যথেষ্ঠ। সাপ কত স্পিডে বিষ নিক্ষেপ করতে সক্ষম তা নির্ভর করে সাপের দৈর্ঘ্যের উপর।

তবে যে স্পিডেই এটা নিক্ষেপ করুক না কেন তা মানুষের চোখে যাওয়ার জন্য যথেষ্ঠ। ৪ থেকে ৮ মিটার পর্যন্ত এরা নিক্ষেপ করতে সক্ষম। এজাতীয় সাপের বিষে অনেক রকমফের রয়েছে। কিছু সাপ শুধুমাত্র কার্ডিওটক্সিন বহন করে।

আরো কিছু সাপ নিউরোটক্সিন, সাইটোটক্সিন, ফসফলিপেজ এবং কার্ডিওটক্সিনের সংকর বহন করে। কার্ডিওটক্সিন-কেই মূলত চোখের ক্ষতির কারণ হিসেবে ধরা হয়। এই সাপের মূল অবস্থান হল চিন,কম্বোডিয়া,থাইল্যান্ড, ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়া, সিঙ্গাপুর এবং আফ্রিকার বেশ কিছু দেশে।

অনেকের ধারণা ভারতের কিছু মনোক্লেড কোবরা বিষ নিক্ষেপ করতে সক্ষম। কিন্ত এর সপক্ষে এখনো প্রমাণ মিলেনি।

তথ্যসুত্রঃ

[১] https://www.nationalgeographic.com/animals/2005/02/news-cobras-venom-eyes-perfect-aim/

[২]https://www.ncbi.nlm.nih.gov/pmc/articles/PMC4529546/

লিখেছেনঃ Saowabullah Haque

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *